চলতি বছর সত্যজিৎ রায়ের লেখা গোয়েন্দা উপন্যাস ‘সোনার কেল্লা’র ৫০ বছর পূর্ণ হলো। ১৯৭১ সালের ডিসেম্বরে ৮৬ পৃষ্ঠার এই বইটি প্রথম প্রকাশিত হয়েছিল।

সত্যজিৎ রায় নিজেই সোনার কেল্লার প্রচ্ছদ এবং অলংকরণ করেছিলেন। ফেলুদা সিরিজের জনপ্রিয় একটি চরিত্র হলো লালমোহন গাঙ্গুলি উরফে জটায়ু। আর এই উপন্যাসেই কমিক এই চরিত্রটির প্রথম আবির্ভাব ঘটে।

১৯৭১ সালে দেশ পত্রিকার শারদীয় সংখ্যায় প্রথম প্রকাশিত হয়েছিল সোনার কেল্লা। এরপর একই বছরের ডিসেম্বরে আনন্দ পাবলিশার্স থেকে বই আকারে এটি প্রকাশিত হয়।

১৯৭৪ সালে সত্যজিৎ রায় সোনার কেল্লা অবলম্বনে একই নামের একটি সিনেমা তৈরি করেন। এতে ফেলুদা চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন সৌমিত্র চ্যাটার্জি। সোনার কেল্লার মাধ্যমেই ফেলুদা চলচ্চিত্র জগতে পা রাখে। অর্থাৎ ফেলুদা সিরিজের প্রথম সিনেমাই হলো সোনার কেল্লা।

বাংলা সাহিত্যের জনপ্রিয় একটি গোয়েন্দা চরিত্র প্রদোষ চন্দ্র মিত্র উরফে ফেলুদা। সত্যজিৎ রায়ের সৃষ্ট ফেলুদা ২৫-২৬ বছরের এক যুবক, লম্বা তীক্ষ্ণ চেহারা, চোখে বুদ্ধির আভাস।

১৯৬৫ সালের সন্দেশ পত্রিকার ডিসেম্বর সংখ্যায় ‘ফেলুদার গোয়েন্দাগিরি’ প্রকাশিত হয়েছিল। এই গল্পের মাধ্যমেই বাঙালি পাঠকের সঙ্গে ফেলু মিত্তিরের প্রথম পরিচয় ঘটে। ১৯৬৫ থেকে ৯৭ সাল পর্যন্ত সত্যজিৎ রায়ের ফেলুদা সিরিজ নিয়ে ৩৫ টি সম্পূর্ণ গল্প, ৪টি অসম্পূর্ণ গল্প এবং উপন্যাস প্রকাশিত হয়েছে।

সূত্র: দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

Leave a Reply