ক্রিকেটার হিসেবে শেন ওয়ার্নের খ্যাতি বিশ্বজোড়া। কিন্তু আপনি কি জানেন যে অস্ট্রেলিয়ান এই কিংবদন্তি ক্রিকেটার একজন লেখকও ছিলেন? জীবদ্দশায় তিনি বেশ কয়েকটি বই লিখেছিলেন। শুক্রবার (৪ মার্চ) মাত্র ৫২ বছর বয়সে হার্ট অ্যাটাকে মারা যান তিনি। ওয়ার্নের লেখা বইগুলো এক নজরে দেখে নেয়া যাক।

১. শেন ওয়ার্ন: মাই অউন স্টোরি

এটি ওয়ার্নের লেখা আত্মজীবনী। ১৯৯৭ সালে বইটি প্রকাশিত হয়। ওয়ার্ন সম্ভবত সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ লেগ স্পিনার। এই বইতে তিনি তার ক্যারিয়ারের কিছু গুরুত্বপূর্ণ মুহুর্ত স্মরণ করেছেন। এছাড়া জুয়া খেলার প্রতি তার যে দুর্নিবার আকর্ষণ রয়েছে তা তুলে ধরেছেন।

২. শেন ওয়ার্ন: মাই অটোবায়োগ্রাফি

এই আত্মজীবনীতে ক্যারিয়ারের শুরুতে তার যে উচ্চাকাংখা ছিল তার উল্লেখ করেছেন শেন ওয়ার্ন। স্পোর্টসম্যানশিপের প্রতি তার ব্যক্তিগত মতামত দিয়েছেন। এছাড়া ক্যাপ্টেন্সি নিয়ে তার চিন্তাভাবনাও তুলে ধরেছেন। বইটি ২০০১ সালে প্রকাশিত হয়।

৩. শেন ওয়ার্ন: মাই ইলাস্ট্রেটেড ক্যারিয়ার

বইটি ২০০৬ সালে প্রকাশিত হয়। এই বইতে ওয়ার্নের ব্যক্তিগত সংগ্রহের ছবি এবং তার ক্যারিয়ারের গুরুত্বপূর্ণ মুহুর্তের প্রফেশনাল ছবি রয়েছে।

৪. নো স্পিন: মাই অটোবায়োগ্রাফি 

এই আত্মজীবনীটি ২০১৮ সালের ৪ অক্টোবর প্রকাশিত হয়। বইতে তার ক্রিকেট ক্যারিয়ারের শুরু থেকে অবসরে যাওয়া পর্যন্ত সময় তুলে ধরা হয়েছে। এতে তিনি সততার সঙ্গে তার জীবনের বিতর্কিত বিষয় নিয়ে কথা বলেছেন।

৫. শেন ওয়ার্ন’স সেঞ্চুরি: মাই টপ হান্ড্রেড টেস্ট ক্রিকেটারস

এই বইতে ওয়ার্ন ১০০জন শীর্ষ টেস্ট ক্রিকেটারের কথা বলেছেন, যারা তার ক্রিকেট জীবনে সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য প্রভাব ফেলেছেন। এছাড়া ক্যারিয়ারে যাদের মুখোমুখি হয়েছিলেন, সেসব ক্রিকেট তারকাদের সেঞ্চুরি সম্পর্কে লিখেছেন তিনি। অ্যালান বর্ডার, স্টিভ ওয়াহ, রিকি পন্টিং, গ্লেন ম্যাকগ্রা থেকে শুরু করে ব্রায়ান লারা, শচীন টেন্ডুলকার, জন্টি রোডসকে নিয়েও লিখেছেন।

বইটিতে ম্যাচ ফিক্সিং এর মত গুরুতর বিষয়েরও অবতারণা করেছেন তিনি। শ্রীলংকার অর্জুনা রানাতুঙ্গা, দক্ষিণ আফ্রিকার গ্রায়েম স্মিথের সঙ্গে তার অস্বস্তিকর সম্পর্কের দিকটিও তুলে ধরেছেন। বইটি ২০০৮ সালে প্রকাশিত হয়।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া   

Leave a Reply