কমনওয়েলথ ছোটগল্প পুরস্কারের সংক্ষিপ্ত তালিকায় স্থান পেয়েছে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত সাগুফতা শারমীন তানিয়ার ছোট গল্প। সম্প্রতি কমনওয়েলথ রাইটার্স এর ওয়েবসাইটে এই তথ্য প্রকাশিত হয়েছে।

তানিয়ার ছোটগল্প ‘হোয়াট মেন লিভ বাই’ ২০২২ সালের কমনওয়েলথ ছোটগল্প পুরস্কারের সংক্ষিপ্ত তালিকায় রয়েছে। এই বছর তিনি ছাড়া আর কোন বাংলাদেশি লেখকের গল্প এই পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়নি।

এর আগে ২০১৬ সালে কবি ও কথাশিল্পী সুমন রহমানের ছোটগল্প ‘নিরপরাধ ঘুম’ কমনওয়েলথ ছোটগল্প পুরস্কারের সংক্ষিপ্ত তালিকায় স্থান পেয়েছিল। এছাড়া ২০১৮ সালে লেখক ইমরান খানের ছোটগল্প ‘জ্যামিতিক জাদুকর’ ও এই পুরস্কারের সংক্ষিপ্ত তালিকায় স্থান করে নিয়েছিল।

চলতি বছর কমনওয়েলথভুক্ত দেশগুলো থেকে ৬হাজার ৭শ’র বেশি গল্প জমা পরেছিল। এর মধ্য থেকে সংক্ষিপ্ত তালিকার জন্য ২৬টি গল্প বাছাই করা হয়। ২৩ মে এই তালিকা থেকে ৫টি অঞ্চলের জন্য ৫জন বিজয়ী লেখকের নাম ঘোষণা করা হবে।

২১ জুন একটি অনুষ্ঠানের মাধ্যমে কমনওয়েলথ ছোটগল্প পুরস্কার-২০২২ বিজয়ীর নাম ঘোষণা করা হবে।

উল্লেখ্য, সাগুফতা শারমীন তানিয়া ১৯৭৬ সালে ঢাকার বাসাবোতে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) এর স্থাপত্য অনুষদ থেকে স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেছেন। বর্তমানে তিনি লন্ডনে বসবাস করছেন।

তিনি ২০১৮ সালে বাংলা একাডেমির সৈয়দ ওয়ালীউল্লাহ সাহিত্য পুরস্কার পান। বিবিসি শর্ট স্টোরি পুরস্কার- ২০২১ এর জন্য তার ছোট গল্প ‘সিন্সেরলি ইয়োরস’ দীর্ঘ তালিকাভুক্ত ছিল।

তার প্রকাশিত বইগুলি হলো, ‘কনফেশন বক্সের ভিতর। অটাম-দিনের গান’ (২০১০), ‘ভরযুবতী, বেড়াল ও বাকিরা’ (২০১১), ‘অলস দিন-খয়েরিপাতা-বাওকুড়ানি’ (২০১২), ‘আনবাড়ি’ (২০১৩)।

Leave a Reply