জোরপূর্বক সন্তান জন্মদানকে দাসত্বের সঙ্গে তুলনা করেছেন বুকারজয়ী কানাডিয়ান লেখক মার্গারেট অ্যাটউড। আমেরিকার সুপ্রিম কোর্ট সম্ভবত নারীদের গর্ভপাতের অধিকার বাতিল করতে পারে-এই সংবাদের প্রতিক্রিয়ায় তিনি এ তুলনা করেছেন।

৭ মে যুক্তরাজ্যের প্রভাবশালী পত্রিকা গার্ডিয়ানে প্রকাশিত এক নিবন্ধে তিনি এই প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন। এই নিবন্ধে তিনি তার সর্বশেষ বই ‘Burning Questions: Essays and Occasional Pieces, 2004 to 2021’ থেকে কিছু অংশ উদ্ধৃত করেছেন।

অ্যাটউড লিখেন, ‘যে নারীরা সন্তান ধারণ করবেন বা করবেন না সে সম্পর্কে নিজের সিদ্ধান্ত নিতে পারেন না তারা ক্রীতদাসের মত। কারণ রাষ্ট্র তাদের দেহের মালিকানা দাবি করে এবং কী কাজে তাদের দেহ ব্যবহার করা যাবে তার নির্দেশ দেয়ার অধিকার রাখে।’  

মে মাসের শুরুতে আমেরিকার সুপ্রিম কোর্টের একটি খসড়া প্রস্তাব লিক হয়। এটি চূড়ান্ত হিসেবে মনোনীত হলে দেশটির ১৯৭৩ সালের পুরনো গর্ভপাত আইন বদলে যেতে পারে। ফলে গর্ভপাত বেআইনি ঘোষণা করা হতে পারে।

১৯৭৩ সালে রো বনাম ওয়েড মামলায় (Roe v. Wade Case) গর্ভপাতকে বৈধ বলে রায় দিয়েছিল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিম কোর্ট।

অ্যাটউড নারীর গর্ভপাতের অধিকারের একজন স্পষ্টবাদী প্রবক্তা। ২০১৯ সালে তিনি গর্ভপাতের উপর নিষেধাজ্ঞাকে দাসত্বের সঙ্গে তুলনা করেছিলেন।

উল্লেখ্য, মার্গারেট অ্যাটউড কানাডিয়ান কবি, ঔপন্যাসিক, সাহিত্য সমালোচক, প্রাবন্ধিক, শিক্ষক এবং পরিবেশবাদী কর্মী। এ পর্যন্ত তার ১৮টি কবিতার বই, ১৮টি উপন্যাস, ১১টি নন-ফিকশন, ৮টি শিশুতোষ বই , ২টি গ্রাফিক নভেল প্রকাশিত হয়েছে। তিনি ২ বার বুকার প্রাইজ পেয়েছেন। তার উল্লেখযোগ্য বইগুলো হলো, দ্য হ্যান্ডমেইড’স টেল, সারফেশিং, ক্যাট’স আই, দ্য ব্লাইন্ড এসাসিন, দ্য টেস্টামেন্টস, অরিক্স এন্ড ক্রেক।

সূত্র: দ্য গার্ডিয়ান

Leave a Reply