সাবেক জার্মান চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেল ২০০৫ থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত দীর্ঘ ১৬ বছর ধরে জার্মানি শাসন করেছেন। প্রভাবশালী এই রাজনীতিবিদ তার রাজনৈতিক জীবনের বিভিন্ন ঘটনা পাঠকদের সামনে তুলে ধরার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

ড. ম্যার্কেলের স্মৃতিকথায় সহ লেখক হিসেবে থাকছেন তার দীর্ঘদিনের রাজনৈতিক উপদেষ্টা বিয়াটে বাউম্যান। বইটি ২০২৪ সালে প্রকাশিত হবে বলে আশা করা হচ্ছে। তবে বইটির নাম এখনো ঠিক করা হয়নি বলে জানা গেছে।  

এক বিবৃতিতে ম্যার্কেল বলেন, ‘আমার রাজনৈতিক কাজের কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত এবং পরিস্থিতি এই বইয়ে প্রতিফলিত করতে পেরে আমি ভীষণ আনন্দিত। আমার ব্যক্তিগত ইতিহাসকে অবলম্বন করে বিয়াটে বাউম্যানের সঙ্গে একত্রে লেখা এই বইটি ব্যাপক জনসাধারণের কাছে তাদের বোধগম্য করতে পেরে আমি সন্তুষ্ট।’    

সাবেক জার্মান চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেল

এদিকে প্যান ম্যাকমিলানের সিইও জোয়ানা প্রিওর এক বিবৃতিতে বলেছেন, ‘১৬বছর ধরে জার্মান চ্যান্সেলর হিসেবে দায়িত্ব পালন করে এবং প্রায় ১০০টি ইইউ শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দিয়ে আঙ্গেলা ম্যার্কেল বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষমতাধর নারী হয়ে ওঠেছিলেন। প্যান ম্যাকমিলান তার রাজনৈতিক স্মৃতিকথা প্রকাশের সুযোগ পেয়ে অত্যন্ত গর্বিত।’

উল্লেখ্য, ১৯৯০ সালে জার্মান সংসদে নির্বাচিত হওয়ার আগে ম্যার্কেল একজন রসায়নবিদ এবং পদার্থবিজ্ঞানী হিসাবে কাজ করেছিলেন। পরবর্তীকালে বিভিন্ন সরকারী পদে তিনি কাজ করেন। ২০০৫ সালে তিনি জার্মান চ্যান্সেলর(সরকার প্রধান) হিসেবে নির্বাচিত হন। জার্মানির ইতিহাসে তিনিই প্রথম নারী চ্যান্সেলর ছিলেন। টানা ৪ বার সরকার প্রধান হিসেবে নির্বাচিত হন তিনি। ১৬ বছর ধরে দায়িত্ব পালন করে অবশেষে ২০২১ সালে তিনি অবসরে যান।

সূত্র: কিরকাস

Leave a Reply